শুভচিন্তার কবি ও লেখক নাসরিন জাহান মাধুরী এর আজ শুভ জন্মদিন ।

520
দৈনিক আলাপ পরিবারের পক্ষ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা লেখনির আলোয় আলোকিত কবি নাসরিন জাহান মাধুরী কে ।

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্কঃ সাহিত্যের অন্যতম সারথি কবি ও লেখক নাসরিন জাহান মাধুরী এর আজ  শুভ জন্মদিন । দৈনিক আলাপ পরিবারের পক্ষ থেকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা কবি ও লেখক কে ।
কবি নাসরিন জাহান মাধুরীর জন্ম তিতাস বিধৌত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি ক্রিশ্চিয়ান মিশনারী হাসপাতালে ২রা জুন । কবি লেখক এর বেড়ে ওঠা শহরের কান্দিপাড়া এলাকায়।এখানেই শৈশব, কৈশর কেটেছে।


বাবা প্রয়াত সামসুদ্দিন আহমেদ তিনি সুপারিন্টেনডেন্ট ছিলেন ব্রাহ্মবাড়িয়া ইন্ডাস্ট্রিয়াল স্কুলের।তা ছাড়া তাদের পৈত্রিক ব্যবসা ছিলো প্রিন্টিং। পপুলার প্রেস সেই সময়কার স্বনামধন্য প্রেস ছিলো ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়।
মা তাইবুন নাহার। একজন গৃহিনী হলেও তার অনুশাসন ,আর অদম্য ইচ্ছায় কবির নয় ভাইবোনই পড়াশোনায় সবাই মাস্টার্স করে কেউ কেউ উচ্চতর ডিগ্রীও নিয়েছেন।


প্রাথমিক শিক্ষা ব্রাহ্মবাড়িয়া মিশন স্কুলে, মাধ্যমিক শিক্ষা সাবেরা সোবহান সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় থেকে। উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারী কলেজ থেকে।স্নাতক ও স্নাতোকত্তর ডিগ্রী চট্টগাম বিশ্ববিদ্যালয়ে , বিষয় ছিল প্রাণিবিদ্যা।
কবি লেখক নাসরিন জাহান মাধুরীর বিয়ে হয় ১৯৯৩ সালে, চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ছেলে সহপাঠি জসিম উদ্দিন এর সাথে ।


বিয়ের পর চট্টগ্রামেই থেকে যান। একমেয়ে একছেলে। চট্টগ্রামের বে ভিউ স্কুলে কর্মজীবনের শুরু। ইউরোপিয়ান গ্রামার স্কুলে ১০ বছর কর্মরত ছিলেন। স্বামীর ব্যবসা সূত্রে সিলেটে মাইগ্রেট করেন ২০১৪ সালে। সিলেটে স্কলার্সহোমে এখন কর্মরত আছেন। পেশা শিক্ষকতা।
শত ব্যস্ততার মাঝে থেকেও সাহিত্যের সকল শাখায় গভীর মনোনিবেশ করে যাচ্ছেন সতত। দেশ বিদেশের দৈনিক, সাপ্তাহিক, মাসিক পত্রিকা, অনলাইন মিডিয়া ও বিভিন্ন সংকলনে অনবরত লিখে যাচ্ছেন কবিতা,গল্প, ছড়া। দৈনিক আলাপে উনি নিয়মিত লিখেন !!
কবি ও লেখক নাসরিন জাহান মাধুরী এর প্রকাশিত বই একটিই কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে “মনপৌরের প্রহর”।

কবির নিজের কথা :- লিখালিখির জগতে হঠাৎ করেই এসেছি। আগে মন চাইতো কিন্তু লিখা হয়ে ওঠতো না।
আমার আম্মার ঐকান্তিক ইচ্ছা আমাকে উদ্ভুদ্ধ করে বই প্রকাশের জন্য।
সব পোশাকই ভালো লাগে তবে শাড়ির প্রতি বিশেষ টান।
প্রিয় খাবার মায়ের হাতের রান্না কচু শাক আর শোল মাছ দিয়ে মাসের ডাল।
শৈশবের অনেক স্মৃতিই আমায় তাড়িত করে। এতো সুন্দর শৈশব আমি খুব মিস করি, যেখানে আর ফেরা হয় না।
নতুন প্রজন্মের কাছে অনেক আশা। আমার দৃষ্টিতে এ প্রজন্মের রয়েছে প্রখর বুদ্ধিমত্তা। ওরা ওদের বুদ্ধিমত্তা সৃজনশীলতায় শাণিত করে গড়ে তুলবে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। তাদের তাই সঠিক পথনির্দেশনা দেয়ার দায়িত্ব আমাদের।

১৬ ই ডিসেম্বর আমাদের চূড়ান্ত বিজয়ের শুভক্ষণ।
আমার বড়কাকা, আব্বা, দাদি সহ আরো অনেকে আজ নেই। এই লিখাটা লিখতে গিয়ে ওদের কথাও খুব মনে পড়ছে।ওদের যে দেশপ্রেম ছিল তা আমাদের রক্ত ধারায়ও প্রবাহিত হচ্ছে। আমাদের পরবর্তী প্রজন্মেও দেশপ্রেমের এই ধারা বয়ে যাবে যুগেযুগে।ওদের মধ্যে চির জাগরুক থাকুক মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনের মহান চেতনা।

দৈনিক আলাপ পরিবারের পক্ষ থেকে  আবারও জন্মদিনের শুভেচ্ছা কলমযোদ্ধা নাসরিন জাহান মাধুরী নাসরিন জাহান মাধুরী কে ।

মোঃ আশিকুর রহমান

সম্পাদক দৈনিক আলাপ 

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY