নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলা ৬ মাসে শেষ করতে হাইকোর্টের নির্দেশ

হাইকোর্ট
হাইকোর্ট; ফাইল ছবি

দৈনিক আলাপ ওয়েবডেস্ক:‌ নারী ও শিশু ধর্ষণ এবং হত্যা মামলার বিচার ছয় মাসের মধ্যে শেষ করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের ডিভিশন বেঞ্চ তিনটি ধর্ষণ মামলার চার আসামির জামিন শুনানি শেষে এই নির্দেশ দেন। আদালত বলেন শিশু ধর্ষণ হচ্ছে আর বিচার বিলম্বিত হচ্ছে, যা খুবই দুঃখজনক। এ ব্যাপারে সাত দফা নির্দেশনা দেন হাইকোর্ট।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণ ও হত্যা মামলার বিচার কাজ ১৮০ দিনের মধ্যে সম্পন্ন করার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। তবে এধরনের বেশ কিছু মামলা বছরের পর বছর ধরে বিচারধীন রয়েছে, যা সম্প্রতি হাইকোর্টের নজরে আসে।

বৃহস্পতিবার এমন তিনটি মামলার চার আসামির জামিন শুনানিতে আদালত বলেন, শিশুরা প্রতিনিয়ত ধর্ষণের শিকার হচ্ছে, অথচ বিচার প্রক্রিয়া ক্রমান্বয়ে বিলম্বিত হচ্ছে। যা খুবই দুঃখজনক।

এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণের জন্য আদালত সাত দফা নির্দেশনা দেন। যেখানে সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের বিচারকদের সব ধরনের আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়। শুনানি শুরুর পর বিরতি ছাড়া মামলা পরিচালনা করতে হবে। সাক্ষী উপস্থিত ও তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে মনিটরিং কমিটি গঠনের নির্দেশ দেয়া হয়। হাইকোর্ট আশা করেন, সরকার শিগগির সাক্ষী সুরক্ষা আইন প্রণয়ন করবে।

এসব নির্দেশনা বাস্তবায়নে স্বরাষ্ট্র ও আইন মন্ত্রণালয়ের দুইজন করে সচিব ও সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেলকে আদেশের অনুলিপি পাঠাতে বলা হয়।

Content Protection by DMCA.com

LEAVE A REPLY